রাউজানের দক্ষিন জয়নগর প্রবাসী সংঘের খাদ্য সামগ্রী উপহার

শেয়ার করুনঃ

সৈয়দ জুয়েলঃ করোনায় পৃথিবী জুড়ে বিপর্যয় যতটা হয়েছে,তারচেয়ে এ বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে উন্নত মানবিকতার উদাহরনও উঠে এসেছে সন্দেহাতীতভাবে। অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর সাধ অনেকের থাকলেও সাধ্য নেই অনেকেরই। আবার অনেকের অর্থ কড়ির দেয়াল – পাহাড় সমান থাকলেও দূর্বল মানসিকতায় চাপা পরে যায় পরোপকারীর মানসিকতা।
তাই দৃস্টি ভঙ্গীর উপরও অনেকটা নির্ভর করে অসহায় মানুষের পাশে আসার বিষয়টি। প্রবাসে যারা আছেন,দেশের যে কোন দূর্যোগে তাদের ঝাপিয়ে পরা নতুন নয়,দেশ ও দেশের মানুষের প্রতি ভালবাসার গভীর টানেই তারা এটা করে থাকেন। তো সেটা যে ধর্মেরই হোক না কেন। এরকমই এক ঝাঁক প্রবাসী করোনার এ মহামারিতে খাদ্য সামগ্রী উপহার দিয়েছেন চট্রগ্রামের রাউজানের ৮ নং কদলপুর ইউনিয়নের দক্ষিন জয়নগর গ্রামে।
ওমান,দুবাই,বাহরাইন,আয়ারল্যান্ড,কাতার,মালয়েশিয়া ও ফ্রান্সের প্রবাসীদের নিয়ে গঠন হয় দক্ষিন জয়নগর প্রবাসী সংঘ। এ সংঘের প্রতিটি সদস্য বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী,কিন্তু ধর্মের ভেদাভেদের বিচারে না গিয়ে মানবতাবোধকেই সবার আগে স্থান দিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন মানুষের সেবায়,এ গ্রামের বৃহত এক অংশ মুসলমান ও বৌদ্ধ ধর্মের। কিন্তু এদের ভিতর সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক অটুট থাকে প্রতিনিয়ত। গত ২৬ জুন প্রবাসীদের পাঠানো অর্থ দিয়ে যে খাদ্য উপহার দেয়া হয়েছে তাতে এখানের সব ধর্মের অসহায়দের মাঝেই বিতরন করেছে সংগঠনটি।
এ বিষয়ে আয়ারল্যান্ডে বসবাসরত টিপন বড়ুয়ার সাথে কথা বললে তিনি জানান- করোনায় অনেক পরিবারই অসহায় হয়ে পরায় নিজেদের দায়বদ্ধতা থেকেই এ সহায়তা দিয়েছে সংগঠনটি। প্রবাসীদের নিয়ে এ সংগঠনের সাথে যুক্ত হতে পেরে আমরা ২০ জন সদস্যই গর্বিত। সবার আর্থিক সহায়তায় এ খাদ্য উপহার দেয়া সম্ভব হয়েছে। আগামীতে আমাদের আরো সদস্য বাড়ানো হবে বলেও তিনি যানান। করোনার পরেও অসহায় মানুষের পাশে থাকার ধারা অব্যাহত থাকার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন সংগঠনটির সদস্যরা। প্রবাসীদের সহায়তায় এ খাদ্য সামগ্রী উপহারের সময় উক্ত গ্রামের নেতৃস্থানীয় ব্যাক্তিরা ছারাও এক দল তরুন এ মহতী কাজে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন প্রবাসী এই আলোকিত ২০ সদস্যরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *